কুয়েতে নারী শ্রমিকদের খাদ্য সহায়তা প্রদান

কুয়েতে নারী শ্রমিকদের খাদ্য সহায়তা প্রদান

সাদেক রিপন, কুয়েত থেকে:  কুয়েতে বাংলাদেশি পুরুষ শ্রমিকের পাশাপাশি ৫ থেকে ৬ হাজার নারী শ্রমিকও রয়েছে। এ সব শ্রমিক দেশটির বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ক্লিনিংয়ের কাজ করে থাকেন। কুয়েত সরকার করোনা বিস্তার রোধে ঘোষিত লকডাউনের গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রতিষ্ঠান ছাড়া প্রায় বেশিভাগ প্রতিষ্ঠানই বন্ধ রয়েছে। যার কারণে কর্মহীন হয়ে কষ্টে দিন যাপন করছে এ সব নারী শ্রমিক।
এক নারী শ্রমিক বলেন, লকডাউন এলাকায় থাকার ফলে আমরা বের হতে পারছি না কারো কাছ থেকে সহযোগিতাও পাচ্ছি না। খাবারের সমস্যার মধ্যে আছি, এক বেলা খেয়ে, আবার দুই বেলা না খেয়ে দিন কাটছে আমাদের। কুয়েতের ব্যবসায়ী ও বিত্তবানরা যদি একটু সহযোগিতা করত তাহলে আমাদের অনেক উপকার হতো।
এমন অবস্থায় দেশটির লকডউন এলাকা জিলিব আল সুয়েক ৪ নম্বর ব্লকের একটি ব্যারাকে প্রায় সাড়ে ৮শ' নারী শ্রমিকের পাশে দাঁড়িয়েছে আন্তর্জাতিক প্রবাসী কবি পরিষদ (আপ্রকপ) ফাউন্ডেশন।
সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা কুয়েত প্রবাসী লেখিকা ও সাংবাদিক নাসরিন আক্তার মৌসুমী বলেন, দুর্যোগকালীন এই পরিস্থিতিতে পুরুষ শ্রমিকরা বিভিন্ন সংগঠন ও নানাভাবে খাদ্য সংগ্রহ ও সহায়তা পেলেও নারী শ্রমিকরা সেই সুযোগ পাচ্ছে না। তাই আমরা কয়েকজন বন্ধু মিলে তাদের সহযোগিতা করছি যেটা তাদের চাহিদার তুলনায় খুবই সামান্য। আমাদের ফাউন্ডেশনের এ ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তবে বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে যদি কুয়েতের ব্যবসায়ী ও বিত্তবান কমিউনিটির নেতারা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে তাদের কষ্টটা অনেকটাই লাঘব হতো