জকিগঞ্জ থেকে আখালিতে এনে কিশোরীকে ধর্ষণ: গ্রেফতার ২

জকিগঞ্জ থেকে আখালিতে এনে কিশোরীকে ধর্ষণ: গ্রেফতার ২

ইমরান মাহমুদ,সিলেট: সিলেটের জকিগঞ্জে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষিত কিশোরীর মায়ের সাধারণ ডায়েরির প্রেক্ষিতে জকিগঞ্জ থানা পুলিশ উদ্ধার ও আসামীদের গ্রেফতার করতে অভিযান পরিচালনা করে। মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং’র মাধ্যমে কিশোরীকে উদ্ধার ও ২ যুবককে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।গ্রেফতার কৃতরা হচ্ছে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার সাজ্জাদ মিয়া ও সজিব আহমদ।
পুলিশ জানায়, গত ৮ আগস্ট ওই কিশোরীর মায়ের জিডির ভিত্তিতে তদন্তে নামে পুলিশ। ওইদিন মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে সিলেট নগরের হুমায়ুন রশীদ চত্বর এলাকা থেকে সজিবকে গ্রেফতার করা হয় এবং ধর্ষিতা কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। এরপর সজিবের দেয়া তথ্যর ভিত্তিতে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা এলাকা থেকে সাজ্জাদকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. শাহিনুর রহমান জানান, ওই কিশোরীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে সাজ্জাদ মিয়া। সাজ্জাদকে সহযোগিতা করে তার খালাতো ভাই সজিব। গত ৭ আগস্ট জকিগঞ্জের আটগ্রাম এলাকার আশ্রয়ণ প্রকল্পের সামনে থেকে একটি অটোরিকশায় করে ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নিয়ে আসেন সাজ্জাদ। তিনি সিলেট মহানগরীর আখালিয়া এলাকায় নিজের ফুপুর বাসায় রেখে কিশোরীকে ধর্ষণ করেন।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জকিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মো. আবদুন নাসের বলেন, অভিযোগে প্রেক্ষিতে আমরা অভিযান চালিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করেছি এবং ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত ২ জনকে আটক করেছি। ইতিমধ্যে গ্রেফতারকৃতরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।